৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  বিকাল ৩:০৪  ১৬ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী
২০শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

বরেণ্য ব্যক্তিত্ব ওমর হায়দার স্মরণে যা বললেন বীর মুক্তিযোদ্ধা বেঙ্গল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজধানী ঢাকার মালিবাগ চৌধুরীপাড়া এলাকার বরেণ্য ব্যক্তিত্ব আবুল বাশার ওমর হায়দারের মৃত্যুবাষির্কীতে গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মহান মুক্তিযুদ্ধে রাজধানী ঢাকার বেঙ্গল প্লাটুনের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাঈল হোসেন বেঙ্গল। মহান মুক্তিযুদ্ধের বরেণ্য সংগঠক আবুল বাশার ওমর হায়দারের মৃত্যুবার্ষিকী ছিলো বৃহস্পতিবার ২৫ জুন ২০২০ খ্রি.।

মহান আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করেন কায়মনে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাঈল হোসেন বেঙ্গল বলেন, বরেণ্য রাজনীতিবীদ আবুল বাশার ওমর হায়দার ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহধন্য কর্মী ও নেতা। মহান স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই তিনি ছিলেন রাজারবাগ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মালিবাগ চৌধুরীপাড়া ওয়ার্ডের সভাপতি। আমার সৌভাগ্য হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের পূর্বক্ষনে সংগ্রাম কমিটির সেক্রেটারি হিসেবে তার নের্তৃত্বে কাজ করার। সে সময় সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ছিলেন মরহুম আলহাজ্ব আনোয়ার আলী মেম্বার।

বেঙ্গল আরো বলেন, ওমর হায়দার ভাই আমার বন্ধু মুনির হায়দারের বড় ভাই ছিলেন। রাজনীতির পাশাপাশি তার সাথে, তার পরিবারের সাথে এক নিবিড় সম্পর্ক ছিল যা এখনও বিদ্যমান। ওমর হায়দার এর সহধর্মীনি বেবী হায়দার (বেবী আপা) একজন সমাজকর্মী ছিলেন। ওমর হায়দারের বোন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা রাবেয়া হায়দারের স্বামী মুক্তিযুদ্ধের স্বাধীনতা ঘোষনা পাঠকারি প্রখ্যাত চার ছাত্র নেতার একজন জনাব সাবেক মন্ত্রী শাহাজাহান সিরাজ। ওমর হায়দার ভাইয়ের ছোট বোন নীনা আলম একজন প্রখ্যাত শিক্ষক। হায়দার ভাইয়ের ছোট ভাই মরহুম স্বপন মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার একজন পরিচিত মুখ।

বৃহস্পতিবার ছিলো তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী। আমি তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করি।