৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ১০:৪১  ৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

ফরিদগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি :

ফরিদগঞ্জ পৌরসভার পূর্ব বড়ালী গ্রামে সম্পত্তিগত বিরোধের জেরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে থানায় অভিযোগ দিয়েছে দুই পক্ষ। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, রবিবার বিকালে পূর্ব বড়ালী গ্রামের খন্দকার বাড়িতে মিজানুর রহমান খন্দকার ওরফে মিজু খন্দকার (৫৫) এর সাথে তারই বড় ভাই মৃত আবুল কালাম খন্দকারের স্ত্রী কামরুন নাহার (৬০) এর সাথে বিরোধপূর্ণ সম্পত্তিতে দুটি ফলজগাছ কর্তন মৃদু সংর্ঘষ হয়।

এ ঘটনায় মিজানুর রহমান বাদী হয়ে তার বড় ভাবী কামরুন নাহার সহ ৪ জনকে বিবাদী করে থানায় অভিযোগ করেন। একই ঘটনায় কামরুন নাহার তার দেবর মিজানুর রহমান ও তার মেয়ের জামাতাসহ ৫ জন বিবাদী করে থানায় আরেকটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এবিষয়ে আবুল কালাম খন্দকারের ছেলে আবদুস ছামাদ এ প্রতিনিধিকে বলেন, আমাদের সম্পত্তির উপর রোপণকৃত জামরুল গাছ থেকে আমার কাকার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন সময় জামরুল নিয়ে যায়। এতে আমরা তাদেরকে মৌখিকভাবে বাধা দিলে আমার কাকাতো বোনের জামাই দুলাল আমাদের জামরুল গাছ, নারিকেল গাছ পেয়ারা গাছ কেটে দেয়। এছাড়া তাদের উপর মারধরের অভিযোগ করেন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

এদিকে মিজানুর রহমান পাল্টা অভিযোগে বলেন, ভাগের সম্পত্তি থেকে জামরুল পাড়ার জন্য ছেলে-মেয়ে ও মেয়ের জামাইকে মারধরের অভিযোগ করেন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মান্নান পরান এ প্রতিনিধিকে বলেন, অভিযোগকারীদের বসত ভিটা নিয়ে যে বিরোধ আমি সালিশের মাধ্যমে তা মিমাংসা করে দিয়েছি। এছাড়া আমি স্থানীয় লোকজনের কাছে শুনেছি তাদের দু’পরিবারের মধ্যে আবারো জামেলা হয়েছে।