৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  বিকাল ৩:১৪  ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

একই দিনে শিশুর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ ও পজিটিভ!

নমুনা পরীক্ষায় ১২ বছরের এক শিশুর করোনাভাইরাসের রিপোর্ট প্রথমে নেগেটিভ আসে। পরে একই দিনে আবারও তার করোনার রিপোর্ট আসে পজিটিভ। এমন ঘটনা ঘটেছে নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে।

গতকাল রোববার দুপুরে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে ওই শিশুর পরিবারকে মুঠোফোনে এই দুই ধরনের রিপোর্টের বিষয়টি জানানো হয়। তবে ওই হাসপাতালে শিশুর পরিবারের অপর পাঁচজনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ এসেছে।

করোনা পজিটিভ আসা শিশুটির বাবা শহরের চাষাঢ়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি জানান, শনিবার তিনি ও তার ১২ বছর বয়সী ছেলেসহ পরিবারের ছয়জন শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে নমুনা দেন।

রোববার দুপুরে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তাকে মুঠোফোনে প্রথমে জানানো হয় তার ছেলে করোনা নেগেটিভ এসেছে। পরে আবার ফোন করে জানানো হয় ছেলের করোনা পজিটিভ। তবে পরিবারের বাকি পাঁচজনের করোনা নেগেটিভ এসেছে বলে জানান চাষাঢ়া এলাকার ওই বাসিন্দা।

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি শোনার পর আমি মানসিকভাবে কষ্ট পেয়েছি। আতঙ্কে আছি। এত ছোট ছেলে তার কোনো উপসর্গ নেই। সবাই নমুনা পরীক্ষার জন্য যাচ্ছে বলে ১২ বছর বয়সী ছেলেকেও নমুনা পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাই।’

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে আজ সোমবার আবারও তার ছেলের নমুনা দেওয়ার জন্য হাসপাতালে যেতে বলা হয়েছে বলেও জানান শিশুটির বাবা।

জানতে চাইলে জেলা করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তিনি জেনেছেন। পরবর্তী সময়ে হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তাকে জানালে তিনি ওই শিশুর করোনা পজিটিভ বলে নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক সামসুদ্দোহা সঞ্চয় বলেন, ওই শিশুর রিপোর্টে একটু ঝামেলা হয়েছে। তবে ল্যাবের ভাইরোলজিস্ট নিশ্চিত করেছেন ওই শিশুর করোনা পজিটিভ।

রিপোর্ট প্রস্তুত করার সময় মূদ্রণজনিত ভুলে দুই ধরনের রিপোর্ট হয়েছে বলেও জানান হাসপাতালের এই কর্মকর্তা।

নিউজ বার্তা কক্ষ.