১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ১:৩৩  ১০ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

বেড়াতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হলেন নারী

প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাটে নতুন করে আরও ২ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। 

কালীগঞ্জে জেলার  প্রথম করোনাভাইরাসে সংক্রামক এক নারী ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসে হিসাব রক্ষক।

শনিবার (১৬ মে) রাত সাড়ে ৮টায় লালমনিরহাটের সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৬ জনে। এর মধ্যে তিনজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায় জানান, নতুন কওরে আক্রান্তরা হলেন কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসে হিসাব রক্ষক  বেলায়েত হোসেন (৪৪) ও উপজেলার কাশীরাম গ্রামের আব্দুল লতিফের মেয়ে রোজিনা (২৫)।

জানা গেছে, ঢাকায় বোনের বাড়ি বেড়াতে গিয়ে  গত ৭ মে রোজিনা (১৮) ঢাকা হেমায়েদপুর বোনের বাসা থেকে জ্বর সর্দি ও কাশি নিয়ে নিজ বাড়ি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জের কাশীরাম গ্রামে আসেন।এরপর গত ৯ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুরে  পাঠানো হয়।  

অপরজন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসে হিসাব রক্ষক বেলায়েত হোসেনের জ্বর সর্দি ও কাশি থাকায় একই দিনে তারও নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়। শনিবার রাতে সেই রির্পোট পজেটিভ আসে। বেলায়েতকে ইতোপূর্বে হোমকোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। সে লালমনিরহাট সদর উপজেলায় নিজ বাসায় অবস্থান করছেন।

এ ঘটনায় রাতেই কাশীরাম গ্রামের লতিফের বাড়িসহ তিনটি বাড়ি ও লতিফের চায়ের দোকানসহ পাশের তিনটি দোকান লগডাউন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান। এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, থানার অফিসার ইনচার্জ অরজু মোঃ সাজ্জাদ হোসেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জিয়াউল হাসান সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদের বাড়ি ও চায়ের দোকান লকডাউন করা হয়েছে।

বার্তা কক্ষ: