৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  রাত ১২:২৬  ৫ই রমযান, ১৪৪২ হিজরী
১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং

লালমরিহটে ঈদের সকালেই ১০ মিনিটের ঝড়ে লন্ডভন্ড ঘরবাড়ি

ঈদের সকালে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ১০ মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে অর্ধশত ঘরবাড়ি। আহত হয়েছেন অন্তত পাঁচজন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।

২৫ মে সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের ১০টি গ্রামে কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে হঠাৎ করে আকাশে ঘন মেঘ দেখা দেয়ার পরপরই ঝড় শুরু হয়। প্রচণ্ড ঝড়ো বাতাসে মুহূর্তেই অর্ধশত বসতবাড়ি, গাছপালা, বিদ্যুৎতের খুঁটি, সবজি ক্ষেত, ধান ক্ষেত লন্ডভন্ড হয়ে যায়। ঝড়ে উড়ে যায় ঘরের টিন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো এখন খোলা আকাশের নিচে মাবনবেতর জীবন কাটাচ্ছে। ঝড়ে শিশু শিক্ষার্থীদের বই-খাতাসহ অনেক কিছুই নষ্ট হয়ে গেছে। এ সময় ঝড়ে অন্য জায়গায় আশ্রয় নিতে গিয়ে পাঁচজন আহত হয়েছেন।

এদিকে খবর পেয়ে চলবলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন।

ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত রুস্তম আলী বলেন, ঘুম থেকে উঠে ঈদের নামাজ পড়তে বের হবো, সেই মুহূর্তে শুরু হল ঝড়। এতে আমার থাকার একটি ঘর ঝড়ে উড়ে গেছে। এখন নিরুপায় হয়ে খোলা আকাশের নিচে আছি।

কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প ও বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফেরদৌস আহম্মেদ বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর ঘরবাড়ি পরিদর্শনের জন্য ইতোমধ্যে রওনা হয়েছি। পরিবারগুলোর তালিকা করে দ্রুত পুনর্বাসনের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদেরগুলোকে দ্রুত ত্রাণ সামগ্রী প্রদান ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে।

বার্তা কক্ষ,