৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ১১:১৬  ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

চাঁদপুরের চার বারের সাবেক এমপি এম এ মতিন আর নেই

চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) আসনের চার বারের সাবেক এমপি, প্রবীণ বিএনপি নেতা এম এ মতিন ইন্তেকাল করেছেন। ২৬ মে মঙ্গলবার সকাল ৯টা ৫ মিনিটের সময় ঢাকার একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।

চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক এ তথ্য জানান।

ঢাকা থেকে ঐক্যফণ্টের দপ্তর সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু জানান, মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮৭ বছর। আজ মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় উত্তরা রেডিক্যাল হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

গত এক সপ্তাহ আগে তিনি ব্রেনস্ট্রোক করেন। পরে তাকে উত্তরা রেডিক্যাল হাসপাতালে সিসিইউতে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এম এ মতিন।

চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ- শাহরাস্তি) নির্বাচনী এলাকার চার বারের সাবেক এই এমপি বিএনপির কেন্দ্রীয় জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য। এম এ মতিন একজন সৎ, নিষ্ঠাবান ও জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ ছিলেন। প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে এমএ মতিন এক ছেলে, চার মেয়ে এবং অসংখ্য রাজনৈতিক সহযোদ্ধা রেখে গেছেন।

হাজীগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, আজই জাতীয় সংসদ ভবনে, বিএনপির প্রধান কার্যালয় এবং সবশেষে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে এমএ মতিনের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে হাজীগঞ্জের টোরাগড় এলাকার পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে দাফন করার কথা রয়েছে। হাসপাতালে গোসলের পর আজই মরহুমকে চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলা নেয়া হবে।

প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ ও সাবেক সংসদ সদস্যের মৃত্যুতে গভীর শোক ও পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক। এদিকে, এমএ মতিনের মৃত্যুর সংবাদ এলাকায় পৌঁছালে দলমত নির্বিশেষে সবার মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে স্থানীয়ভাবে লোকসমাগম ঘটিয়ে আনুষ্ঠানিক জানাজা না করতে পুলিশ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে মরহুমের পরিবার বিএনপির প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিনিধি: