১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ১২:১০  ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরাম চৌধুরীর চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগীতা কামনা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি, চ্যানেল আই এর স্টাফ রিপোর্টার, জাগো নিউজের জেলা প্রতিনিধি এবং দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের সম্পাদক ও প্রকাশক সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরী গত আড়াই মাস যাবৎ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় শহরের নাজিরপাড়াস্থ বাসায় দিন কাটাচ্ছেন। বর্তমানে তার জীবন সংকটাপন্ন। তাকে বাঁচাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেছেন পরিবার।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, লকডাউনের কারণে এ মুহূর্তে ঢাকায়ও নিতে পারছে না তার পরিবার। তার শারিরীক অবস্থা কখনো উন্নতি আবার কখনো অবনতি ঘটছে। বাসায় সেভাবে চিকিৎসাও হচ্ছে না। এখন শুধু ঔষধের উপর চলছে। প্রতিদিনই তার তিন থেকে চার হাজার টাকার ঔষধ সেবন করতে হচ্ছে। বর্তমানে তার দু’টি কিডনিই এখন অকেজো। ঠিক মতো খেতে পারছে না। নড়া-চড়াও অনেকটা বন্ধ। শুয়ে বসে দিন কাটাচ্ছে তিনি। ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতে নেওয়া প্রয়োজন। সেখানে কিডনী প্রতিস্থাপন করতে হবে। এ জন্য প্রচুর টাকার প্রয়োজন।

এ মুহূর্তে জীবন বাঁচাতে তার পরিবার উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এ জন্য চাঁদপুরের কৃতিসন্তান মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে আর্থিক সহযোগিতা পেলে ভারতে নিয়ে কিডনী প্রতিস্থাপন করবে বলে পারিবারিক সূত্রে বিষয়টি জানিয়েছে।

সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরীর সহযোগিতায় ইতিমধ্যে অনেকই এগিয়ে এসেছেন। বিশেষ করে শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপি, চাঁদপুর জেলা প্রশাসন, চাঁদপুর প্রেসক্লাব, চাঁদপুর টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম, চাঁদপুরস্থ ফরিদগঞ্জ ফাউন্ডেশনসহ আরো অনেকেই আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। কিন্ত তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিশাল অংকের অর্থের প্রয়োজন। তাই ব্যক্তিগত কিংবা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও তার চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন সাংবাদিক মহল। পাশাপাশি তার উন্নত চিকিৎসার জন্য চাঁদপুরের কৃতিসন্তান মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপিরও জোরালো হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাংবাদিক সমাজ।

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক তার চিকিৎসার খোঁজখবর রাখছেন এবং সবধরণের সহযোগিতারও চেষ্টা করছেন।

এ ব্যাপারে তার ছোট ভাই চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক শরীফ চৌধুরী জানান, সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরী দীর্ঘদিন যাবৎ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় শহরের নাজিরপাড়াস্থ বাসায় দিন কাটাচ্ছেন। তার দু’টি কিডনীই অকেজো হয়ে গেছে। তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনির মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সু-দৃষ্টি কামনা করছি। এ মুহূর্তে তার জীবন বাঁচাতে বিদেশে চিকিৎসা ব্যবস্থার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করছি।

প্রায় ৩ যুগ সাংবাদিকতা পেশায় রয়েছেন সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরী। একজন শতভাগ পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে সারাজীবন পেশাদারিত্ব নিয়ে কাজ করেছেন। নিজের জন্য তেমন কিছুই করেন নি। সরকারি চাকুরী ছেড়ে সাংবাদিকতার মহান পেশায় জীবনটা উৎসর্গ করেছেন। এখন তার জীবন সংকাটাপন্ন। তাই পাশে দাঁড়াতে আসুন আমরা সবাই এগিয়ে আসি। তার এক ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছেন। যদিও কেউ আয়-রোজগার করছেন না। ছেলে-মেয়ে লেখাপড়া করছে। ফলে এখন চিকিৎসা তো দূরে কথা সংসার চালানোই কষ্টকর হয়ে পড়েছে সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরীর পরিবারের।

প্রসঙ্গত, সাংবাদিক নেতা ইকরাম চৌধুরী গত বছর ঢাকা ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে হার্টের ব্লক অপারেশন করেছিলেন।

তিনি ডায়বেটিক, হাট ও কিডনি’র সমস্যায় ভুগছেন। তাকে গত দু’বছরে চাঁদপুর ও ঢাকায় কয়েকবার চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। বর্তমানে শহরের নাজির পাড়া বাসভবনে রয়েছেন। পরিবারে পক্ষ থেকে তার দ্রুত সুস্থতার জন্য দোয়া কামনা করা হয়েছে।