৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ১১:৪২  ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

শোককে শক্তিতে পরিনত করে এগিয়ে যেতে হবে : জাহিদুল ইসলাম রোমান

নিজস্ব প্রতিনিধি:

ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.জাহিদুল ইসলাম রোমান বলেছেন, স্বাধীন এই বাংলাদেশটা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের। বঙ্গবন্ধু তার স্ত্রীর গহনা বিক্রি করে ছাত্রলীগের বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার জন্য দিয়ে দিতেন। সেই মহিয়সী নারীকে ঘাতকরা নির্মম ভাবে হত্যা করেছে।

শনিবার (১৫ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম সাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রসাশন ও উপজেলা পরিষদ আয়োজিত শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

সকালে উপজেলা অডিটরিয়ামে আয়োজিত শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিউলী হরি।

জোহিদুল ইসলাম রোমান বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর খুনীদের বিচারের মধ্যে দিয়ে জাতিকে কলংকমুক্ত করেছে।। তিনি আরো বলেন, আমরা করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সীমিত আকারে মুজিব বর্ষ পালন করছি।

উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেলায়েত হোসেনের উপস্থাপনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জি এস তছলিম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শারমিন আক্তার, থানার ওসি আবদুর রকিব,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার সহিদুল্লা তফাদার, মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর এম তবিবুল্লা, প্রকৌশলী ড. জিয়াউল ইসলাম মজুমদার, প্রেসক্লাবের সভাপতি কামরুজ্জামান।

এর আগে বঙ্গবন্ধু মুরালের পিতা কেটে উদ্ভোধন করা হয়।পরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করেন উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ফরিদগঞ্জ থানা, প্রেসক্লাব, বিআরডিবি, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ, ফরিদগঞ্জ এ আর মডেল পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সংগঠন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সমাজসেবা কর্মকর্তা সাহাদাত হোসেন, প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. জ্যোতিময় ভৌমিক, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিল্টন দৌস্তিদার, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. ইব্রাহীম মিয়া প্রমূখ।                          

একই দিন ফরিদগঞ্জ পৌরসভা আয়োজিত শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র মো. মাহফুজুল হক।পরে পৌর সভার সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারী বৃন্দ।