১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  বিকাল ৫:০৫  ১০ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

চাঁদপুর পৌরসভার নতুন মেয়র অ্যাড.জিল্লুর রহমান জুয়েল

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন।

নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী জিল্লুর রহমান জুয়েল (নৌকা) প্রতীকে মোট ৩৪ হাজার ৮শ ৩২ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি (ধানের শীষ) প্রতীকে পেয়েছেন মোট ৩ হাজার ৬শ ১১ ভোট।
আর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল (হাতপাখা) প্রতীকে পেয়েছেন মোট ১ হাজার ২শ ১৪ ভোট।

এর আগে, সকাল ৯টায় ইলিকট্রিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে বিকেল চারটায় ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। ছোটখাট দুই একটি ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ছাড়া বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

বেলা ১২টার দিকে গণি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। তবে তেমন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া কয়েকটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের কর্মী সমথর্কদের মাঝেও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এছাড়া দুপুর ২টায় বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচন বয়কট করেন। বয়কটের কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন, তার কর্মী সমর্থকদের ভোট কেন্দ্রে ঢুকতে বাধা প্রদান করা। ভোট বানচালসহ আরও বেশ কয়েকটি কারণ উল্লেখ করেন।

বেলা প্রায় ৩টার সময় সিনিয়র-জুনিয়র বিষয়ে বিতর্কের জেরে ইয়াছিন মোল্লা নামের এক দর্জি শ্রমিক নিহত হয়েছে।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার মো. মাহাবুবুর রহমান জানান, বিষয়টি নির্বাচন কেন্দ্রিক নয়। যেহেতু হত্যাকাণ্ডটি ভোটগ্রহণের সময় হয়েছে তাই বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্তের মাধ্যমে আসল রহস্য উদঘাটন করা হবে।