১৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  ভোর ৫:০৫  ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
১লা নভেম্বর, ২০২০ ইং

ফরিদগঞ্জে ইউপি সচিবের অনুপস্থিতিতে সেবা বঞ্চিত জনগন

নিজস্ব প্রতিনিধি:

ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৬ নং রুপসা দক্ষিন ইউনিয়ন পরিষদের সচিব রাবেয়া বশ্রীর অনিয়মতান্ত্রিক অফিস করায় ও অনুপস্থিতির কারণে সেবা নিতে আসা সাধারন লোকজন সেবা বঞ্চিতের অভিযোগ উঠেছে।

কার্যালয়ে আসা সাধারন লোকজন ও সংশ্লিষ্ট ইউপির দায়িত্বরত গ্রাম পুলিশ সদস্যরা জানায়, ইউপি সচিব রাবেয়া বশ্রী মাঝে মধ্যে কার্যালয়ে আসেন, জনগন প্রায়ই বিভিন্ন কাজে এসে বিড়ন্বনার শিকার হচ্ছেন।

ইউপি সচিব রাবেয়ার অনিয়মতান্ত্রিক আসা- যাওয়ার কারণে সেবা বঞ্চিতদের মধ্যে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, আমরা প্রতিদিন বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাজে পরিষদে এসে সচিবের অনুপস্থিতির কারণে কাজ কাজ গুলো সারতে পারছি না। প্রতি সপ্তাহে ১/২ দিনের বেশী অফিসে আসেনা তিনি।

ভুক্তভোগীদের মধ্যে মোঃ জসিম উদ্দিন, বাবুল, রহিম জানান, আমরা মাঝে মধ্যে ইউপি সচিবকে দেখতে পাই। তিনি প্রায়ই অনুপস্থিত থাকেন। আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় কাজে এসেও সচিব না থাকায় কাজ গুলো সারতে পারছিনা।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপির দায়িত্বরত গ্রাম পুলিশ সদস্য দুলাল,মানিক ও রোকেয়া জানান, সচিব আসেন তবে নিয়মিত নয়। সপ্তাহে কত দিন আসেন ? জবাবে তারা বলেন, ২/৩ দিন আসেন।

কার্যালয়ে কাজ সারতে আসা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানান, আমরা এক টানা ৩ সপ্তাহ অফিসে এসেও তার দেখা পাইনি ।

এ বিষয়ে ইউপি সচিব রাবেয়া বশ্রী মুঠোফোনে জানান, আমার বিভিন্ন অফিসে কাজ থাকতেই পারে। ইউএনও অফিস ও ডিসি অফিসে কাজ থাকে তাই আমি অনুপস্থিত থাকতেই পারি। কাজ ছাড়া অফিসেই থাকি। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সঠিক নহে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইস্কান্দার আলী জানান, আমার সচিব মহিলা মানুষ । মাঝে মধ্যে অসুস্থ্য থাকতে পারে, তাই হয়তো অফিসে আসেনি। তবে কাজ গুছিয়ে যায়। তেমন সমস্যা হচ্ছে না।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিউলী হরি জানান, আমি খোঁজ- খবর নিচ্ছি। সু-নির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।