৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  রাত ৩:৪৪  ২৯শে শাবান, ১৪৪২ হিজরী
১৩ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে পুলিশকে মাদকের তথ্য দেওয়ায় সোর্সকে মারধর, এসআই প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিনিধি:

ফরিদগঞ্জের এক পুলিশ কর্মকর্তার নিকট আত্মীয়কে মাদকসহ আটকের ঘটনায় তথ্য প্রদানকারী পুলিশ সোর্সকে মারধরের অভিযোগে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে ক্লোজড করেছে জেলা পুলিশ সুপার।

জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত মঙ্গলবার ফরিদগঞ্জ থানায় এসআই নুরুল ইসলাম উপজেলার ৩ নং সুবিদপুর পুর্ব ইউনিয়নের মনতলা এলাকা থেকে এক কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবমায়ী কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার মুড়াপাড়া গ্রামের ফরিদগঞ্জ থানার এসআই আবুল কালামের মৃত ভাই আপ্তার আলীর ছেলে আব্দুর রহিম (২৮), ও জেঠাতো ভাই আবুল কাশেমের ছেলে মাসুক ওরফে মাসুদুর রহমান (৩২)কে আটক করে।

ওই ঘটনার জের ধরে পরদিন বুধবার এসআই আবুল কালাম দুই মাদক কারবারীর তথ্য সরবরাহকারী পুলিশের সোর্স ও সিএনজি অটোরিক্সা চালককে থানার সামনে পেয়ে বেদম মারধর করেন। প্রকাশ্যে এই ঘটনার পর পুলিশের ভাবমূতি ক্ষুন্ন হওয়ায় থানার ওসি পুলিশ সুপারকে জানালে তাকে রাতেই ক্লোজড করা হয়।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের ওই সোর্স জানান, এসআই আবুল কালাম আমাকে শুধু মেরে ক্ষ্যান্ত হননি, তিনি আমাকে মারতে মারতে থানার সামনের একটি খাবারের দোকানে নিয়ে হুমকি দিয়ে বলেছেন, ‘আমাকে ইয়াবাসহ চালান দিবে এবং বিভিন্ন মামলার আসামি করে আমার জীবন নষ্ট করে দিবেন। আমি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে আমার জীবনের নিরাপত্তা চাই’।

এব্যাপারে এস আই আবুল কালাম আজাদ তাকে ক্লোজড করার বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন, আমার চাঁদপুর সদর থানায় বদলি হয়েছে। অন্য বিষয় জানি না।

এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন শুক্রবার বিকালে জানান, আমি ঘটনাটি শুনে জেলা পুলিশ সুপার মো: মাহবুবুর রহমানকে জানালে বুধবার রাতেই এসআই আবুল কালামকে চাঁদপুরে ক্লোজড করা হয়।