৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  দুপুর ২:৫৩  ৩রা জিলক্বদ, ১৪৪২ হিজরী
১৪ই জুন, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে অগ্নিকান্ডে দোকান পুড়ে ছাই

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের পৌর এলাকায় এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে একটি মুদি দোকান ও গরুর খামার ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে অন্তত ছয় লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন পরিবারটি। অগ্নিকান্ডের ঘটনা টের পেয়ে আশেপাশের লোকজন ছুটে গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। ততক্ষণে সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ২০ জানুয়ারি বুধবার গভীর রাতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে কেরোয়া গ্রামের চরগুদাড়ার পাশে নদীর পাড়ে।

ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তী বাসিন্দা আব্দুল হালিম ওরফে হগার আলী জানান, রাত আনুমানিক ১২ ঘটিকায় ঘুমিয়ে পড়ি, আমি রাত তিনটা নাগাদ বিকট আওয়াজ পাই। তড়িঘড়ি বাইরে গিয়ে দেখি আমার পাশের দোকানে দাউ দাউ করে আগুন জ¦লছে। আমাদের পরিবার সদস্যরা ডাক চিৎকার দিলে দূর থেকে লোকজন ছুটে আসেন। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করেও আগুন নেভাতে পারিনি। ততক্ষণে দোকানের সম্পূর্ণ মালামালসহ দু’টি ঘর সম্পূর্ণ ও এশটি ঘরের আংশিক পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দোকানের পাশে একটি ঘরে চারটি গরু ছিলো। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গরু সরানো গেছে।

মুদি দোকান মালিক মোস্তফা কামাল (৬০)। সমস্ত জীবনের সঞ্চিত মালামাল পোড়া ছাইভস্ম দেখে তিনি বারংবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন। তার একমাত্র ছেলে মাসুদ (৩৫) জানান, বাবার আয়ে তিনবোন, মাসহ আমাদের ছয় সদস্যের পরিবার এর ভরণপোষণ চলেছে। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় আমাদের পথে বসার অবস্থা হয়েছে। আমাদের কোনো সঞ্চিত টাকা পয়সা নেই। বরং বাবার মাথার ওপর প্রায় দুই লাখ টাকা দেনার দায় ঝুলছে।

উপস্থিত লোকজন এর কাছে জানতে চাইলে অগ্নিকান্ডের কারণ বলতে পারেন নি। এদিকে, খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম রোমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সদস্যকে সমবেদনা জানান।