৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  সন্ধ্যা ৭:০৭  ৩০শে শাবান, ১৪৪২ হিজরী
১৩ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষার্থীর গলায় ফাঁস, পাঁচ দিনপর মৃত্যু

ফরিদগঞ্জে প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে এসএসসি পরিক্ষার্থীর গলায় ফাঁস, চিকিৎসারত অবস্থায় পাঁচ দিন পর মৃত্যু।

জানাযায়, উপজেলার রুপসা উত্তর ইউনিয়নের রুস্তুমপুর গ্রামের খাঁ বাড়ীতে প্রেমিকার সাথে অভিমান করে সাইফুল ইসলাম একমাত্র ছেলে মোঃ সাইমুন ইসলাম রাফি (১৭) ৯ মার্চ মঙ্গলবার দুপুরে নিজ বসত ঘরে পেনের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিলে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চাঁদপুর সরকারী হাসপাতালে প্রেরন করেন এবং চাঁদপুর সরকারী হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করে।

রাফির বাবা সাইফুল ইসলাম দ্রুত চিকিৎসার জন্য নারায়নগঞ্জ অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপিটাল লি: এর আইসিউতে ভর্তি করেন রাফিকে। চিকিৎসারত অবস্থায় ১৪ মার্চ রবিবার দুপর ১২ঘটিকায় রাফি মৃত্যু বরন করে।

মৃত্যুর বিষয়ে রাফির বাবা জানান, আমি অনেক আশা নিয়ে আমার ছেলেকে লেখাপড়া করাচ্ছিলাম। এ বছর রাফি এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল। হঠাৎ করে ৯ তারিখ দুপুরে আমি নারায়নগঞ্জে যাওয়ার পথে খবর পাই রাফি ফাঁিস দিয়েছে। দ্রুত ফিরে উন্নত চিকিৎসার জন্য নারায়নগঞ্জে পাইভেট হাসপাতালের আইসিউতে ভর্তি করি কিন্তু ছেলেটাকে আর বাঁচাতে পারলাম না। তিনি আরো বলেন, ছেলের মৃত্যুর পর তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানতে পারি একই গ্রামের এক মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল।

প্রেমিকার সাথে মোবাইলে কথা বলার পর অভিমান করে রাফি গলায় ফাঁসি দেয়। মেয়েটি আমার ছেলের সাথে চলনা করায় আজ অকালে আমার ছেলে না ফেরার দেশে চলে গেল। আমি এর বিচার চাই।

কি কারনে থানায় অভিযোগ করেননি জানতে ছাইলে রাফির চাচা নুরুল ইসলাম বলেন, আমাদের চেয়াম্যান এই বিষয়টি সমাধান করেদিবেন বলেছেন তাই থানায় জানাই নি আমাদের যদি উনার সমাধান পছন্দ না হয় তাহলে থানায় অভিযোগ করবো।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান ওমর ফারুক ফারুকি বলেন, রাফির গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে মারা গিয়েছে বিষয়টি আমাকে স্থানীয় মেম্বার জানিয়েছে, সমাধানের কিছুই আমি জানি না।

এই বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন জানান, এই বিষয়ে আমাদের কাছে কেউ কোন ধরনের অভিযোগ করেনি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।