১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  রাত ১২:০৫  ২০শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী
১লা আগস্ট, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে অসুস্থ ইমাম আব্দুল কাদেরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন সিআইপি জালাল আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ফরিদগঞ্জ এ. আর পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ঈদগাহ জামে মসজিদের পাঞ্জেগানা ইমাম ও মুয়াজ্জিন আব্দুল কাদেরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ফরিদগঞ্জের কৃতি সন্তান, শিল্পপতি ও সমাজসেবক এবং কাতারস্থ ফরিদগঞ্জ আ’লীগ ফোরামের প্রধান উপদেষ্টা সিআইপি জালাল আহমেদ।

৩০ মার্চ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিআইপি জালাল আহমেদ এর ছোট ভাই সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহাবুদ্দিন সাবু এ তথ্য জানান।

এ বিষয়ে সিআইপি জালাল আহমেদের ছোট ভাই শাহাবুদ্দিন সাবু জানান, ইমাম আব্দুল কাদেরের অসুস্থতার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সূত্রে আমার বড় ভাই কাতারে অবস্থানরত সিআইপি জালাল আহমেদের নজরে পড়ার পর ইমাম আব্দুল কাদেরের খোঁজ খবর নেওয়ার জন্য বলেন এবং তাৎক্ষণিক ইমাম আব্দুল কাদেরের সার্বিক খোঁজ খবর নিয়ে জালাল ভাইকে অবহিত করি। অতঃপর তিনি ইমাম আব্দুল কাদেরের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন এবং আমাকে ও উনার বন্ধু ডা. মিজানুর রহমানকে সকল বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে চিকিৎসাকার্য চালানোর জন্য বলেন।

এ বিষয়ে ইমাম আব্দুল কাদের বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ এ মসজিদে মুয়াজ্জিন এবং পাঞ্জেগানা ইমামের দায়িত্ব পালন করে আসছি। সকালে মক্তবে শিশু-কিশোরদের কোরআন শিক্ষা দিয়ে আসছি। সব মিলিয়ে যে পরিমান বেতন পাই তা দিয়ে আমার সংসার মোটামুটি চলে যাচ্ছিল। সম্প্রতি অসুস্থতা বোধ করি এবং ডাক্তারের কাছে গেলে দুরারোগ্য রোগের কথা বলে, যার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়। আমার এই কঠিন বিপদ মূহুর্তে সিআইপি জালাল আহমেদ ভাই আমাদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে মহানুভবতার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, তা আমার পরিবার চিরকাল মনে রাখবে। দোয়া করি আল্লাহ উনাকে নেক হায়াত দান করুক এবং মনের নেক আশা পূর্ণ করুক।

উল্লেখ্যঃ ইমাম আব্দুল কাদেরের হার্টে ৪টি ব্লক রয়েছে যাহার চিকিৎসা ব্যয় কমবেশি ৫ লক্ষ টাকা লাগবে বলে তার পরিবার সূত্রে জানাগেছে।