৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  রাত ২:০১  ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
২১শে অক্টোবর, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে নিখোঁজ হওয়া অটোরিকশা চালকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের ফয়েজ খান(১৮) নামে এক অটোরিকশা চালকের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

১ এপ্রিল বৃহষ্পতিবার রাতে উপজেলার ১০নং গোবিন্দপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের লামচর গ্রামের একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে লাশটি উদ্ধারের পর শুক্রবার সকালে পোস্ট মর্টেমের জন্য চাঁদপুর প্রেরণ করেছে।

নিহত ফয়েজ খান উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া গ্রামের সিএনজি অটোরিক্সা চালক লতিফ খানের একমাত্র ছেলে।
জানা যায়, গত ২৮ মার্চ রোববার অটোরিক্সা চালক ফয়েজ খান(১৮) তার অটোরিক্সাটি নিয়ে বাড়ী থেকে বের হওয়ার পর আর বাড়ী ফিরে নি। পরদিন তার বাবা লতিফ খান ফরিদগঞ্জ থানায় নিঁেখাজ ডায়েরী করেন।

গতকাল ১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ১০ নং গোবিন্দপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের লামচর গ্রামের কালী মন্দিরের পাশে শিপনের পরিত্যক্ত ঘরে অর্ধগলিত লাশের সন্ধান পায় পুলিশ। পরে লাশ উদ্ধারের পর লতিফ খান তার ছেলে ফয়েজের লাশ বলে সেটি সনাক্ত করে ।

পুলিশ সূত্র জানায়, উদ্ধারকৃত লাশটির পা বাঁধা ছিল। গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অর্ধগলিত হওয়ায় পোস্ট মর্টেমের পরই মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। এব্যাপারে লতিফ খান বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

এব্যাপারে লতিফ খান জানান, ছেলে ফয়েজ খানের সাথে গত রোববার দিন সকালে সর্বশেষ কথা হয়। প্রতিদিন সে দুপুরে খাওয়ার জন্য বাড়ি আসলেও সেদিন বাড়ি আসেনি। রোববার দিন বাড়ি ফিরে না আসায় পরদিন থানায় জিডি করেন। পরে বৃহষ্পতিবার রাতে থানা থেকে ফোন দিয়ে তাদেরকে থানায় আসতে বলেন। পরে উদ্ধারকৃত লাশটি তার ছেলে ফয়েজ তার ছেলে বলে সনাক্ত করেন।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) বাহার মিয়া জানান, রাতে একটি পরিত্যক্ত ঘরে লাশ পড়ে রয়েছে সংবাদ পাই। পরে লাশ উদ্ধার করে শুক্রবার (২ এপ্রিল) সকালে পোস্ট মর্টেমের জন্য চাঁদপুরে প্রেরণ করা হয়েছে।