১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  রাত ৪:২৩  ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী
৩রা আগস্ট, ২০২১ ইং

ফরিদগঞ্জে বেড়েই চলছে করোনার সংক্রমন, শনাক্ত ৬

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ফরিদগঞ্জে ক্রমেই বাড়ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন। ৫ এপ্রিল সোমবর ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে সময়মতো করোনা টেস্ট করাতে পারছেন না লোকজন, ফলে বাড়ছে ভোগান্তি।

ফরিদগঞ্জ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৫ এপ্রিল সোমবার উপজেলার ১নং বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নের ৬ জনে রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এরা হলেন: সকদি রামপুর গ্রামের সাইফুল ইসলাম(৬৫) ও নাজমা বেগম(৩২) ও মদনের গাঁও গ্রামের মোস্তফা কাজী, দেইচর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন(৫১)ও মোঃ নুরে আলম(২৭) ও মুলপাড়া গ্রামের আবু সাঈদ(৩৭)।

এ পর্যন্ত ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ১১০৩ জনের স্যাম্পল সংগ্রহ করা হয়েছে যার মধ্যে ৩৩২ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে। এদের মধ্যে ২৩ জন মারা গেছেন।
এদিকে স্থানীর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঠিকমত করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয় না এবং করোনর উপসর্গ নিয়ে রোগীরা হাসপাতালে গেলে হাসপাতাল কর্তপক্ষ কাল পরশু করে কালক্ষেপন করছেন। যাতে রোগীদের ভোগান্তি বাড়ছে।

করোনা সক্রমন বৃদ্ধি ও ভোগান্তির বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আশরাফ আহমেদ চৌধুরী জানান, আমাদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনবল কম, তা ছাড়াও মেডিক্যাল ল্যাব টেকনোলজিষ্ট যিনি আছেন তিনি এ পর্যন্ত দুইবার আক্রান্ত হয়েছেন এবং তার বয়স পঞ্চাষোর্ধ। সঙ্গত কারনেই আমরা তাকে সতর্কাবস্থায় থাকতে বলি এবং একই কারনে আমরা সপ্তাহের রোববার ও বুধবারই মাত্র নমুনা সংগ্রহ করে থাকি।

তিনি আরো বলেন, আমরা এখন যেই নমুনা সংগ্রহ করি তা আমাদের পকেটের টাকা দিয়ে চাঁদপুরে পাঠিয়ে করোন পরিক্ষা করাতে হয়। আজ সোমবার দুপুরে আমাদের কাছে ৪টি রিপোর্ট আসে যা ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে পাঠিয়েছি এই ৪টিই নেগেটিভ আসে। আর যেই ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে তারা নিজ উদ্যোগে চাঁদপুর গিয়ে করোনার নমুনা দিয়েছে। তাদের প্রাপ্ত ফোন নাম্বার এবং আমাদের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করি। যারা অন্য কোথাও অবস্থান করে ফরিদগঞ্জের ঠিকানা দিয়েছে তাদের প্রতি নির্দেশ থাকে যেন কাছাকাছি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগাযোগ রাখে।