১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  রাত ২:০৫  ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী
৩রা আগস্ট, ২০২১ ইং

করোনায় আজও মৃত্যু ৯৭ শনাক্ত ৩৩০৬

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৭৮৬ পরীক্ষা করাহয় তাদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৯৭ জন। এর আগে গতকাল ১০১ ও গত পরশু ৮৩ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১ হাজার ১৫০ জন।

একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন হাজার ৩০৬ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছেন সাত লাখ ৪৮ হাজার ৬২৮ জন।

আজ সোমবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত অ্যান্টিজেন ও আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে ২৫ হাজার ৭৮৬টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনায় আক্রান্ত আরও তিন হাজার ৩০৬ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১২ দশমিক ৮২ শতাংশ।

আজ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৯৭ জনের মধ্যে ৬১ জন পুরুষ ও ৩৬ জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ১১-২০ বছরের মধ্যে, দুই জনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে, চার জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, ১০ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, ২১ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ও ষাটোর্ধ্ব ৫৯ জন।

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ২৪১ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ৬১ হাজার ৬৯৩ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত ৫৩ লাখ ৭১ হাজার ২৮৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, দেশে মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯৪ শতাংশ। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৮ দশমিক ৩৯ শতাংশ ও মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৯ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে সারাদেশে মোট আইসিইউ শয্যার সংখ্যা এক হাজার ৬৯। এর মধ্যে বর্তমানে ফাঁকা রয়েছে ৩৮৪টি। এখন পর্যন্ত সারাদেশে ৫৮ লাখ ১৮ হাজার ৪০০ জনকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। আর ২৩ লাখ ২৬ হাজার ৮৬৬ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে।