১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  সকাল ১০:৫৮  ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

খাদ্য উৎপাদন না বাড়ালে আগামিতে খাদ্য সংকটে পড়বে দেশ: জাহিদুল ইসলাম রোমান

নিজস্ব প্রতিনিধি:
ফরিদগঞ্জে ৩দিন ব্যাপি কৃষি মেলা ২০২২ এর সমাপনী ও পুরুস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।
৪ সেপ্টেম্বর রবিবার দুপুরে ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিআরডিবি মাঠে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়ােজিত নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রাম ও চাঁদপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় কৃষি মেলা-২০২২ সমাপনী ও পুরুস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান।
উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা তাসলিমুন নেছার সভাপতিত্বে এসময় প্রধান অতিথি বলেন, কৃষি মেলায় যদি কৃষকরা না থাকে, তাহলে এ মেলা করে লাভ কি? যারা কৃষি অধিদপ্তর থেকে সুবিদা ভোগ করে, তারা যদি মেলা অংশ গ্রহণ না করে, তাহলে এ মেলার আয়োজন করে সরকারি টাকা খরচ করে উপকারিতা কি? তা আমার জানা নাই। সরকার প্রতি বছরে কৃষি ক্ষেতে যে বরাদ্দ দেয়, তা শুধু মাত্র কৃষকের উৎপাদন বাড়ানোর জন্য এবং কৃষকের উন্নয়নের জন্য, সেক্ষেত্রে এ মেলায় শতভাগ কৃষকে উপস্থিত করানোর প্রয়োজন ছিল। কৃষকদের উৎসাহ না দিলে কৃষকরা কৃষিতে অনেহা প্রকাশ করবে।
এসময় তিনি আরো বলেন, আমাদেরকে ভবিষ্যত সংকট মোকাবেলায় খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে হবে। খাদ্য উৎপাদন না বাড়ালে ভবিষ্যতে খাদ্য সংকটে পড়তে হবে। বর্তমানে কৃষি একটি মর্ডান পেশা, অনেকেই মনেকরেন যারা কৃষি কাজ করেন তারা নিচু শ্রেণির মানুষ, এটা আসলে ঠিকনা, বিদেশেরে দিকে নজর দিয়ে দেখেন, রিস ম্যান যাদেরকে বলা হয়, তাদের অধিকাংশরাই ধনী ব্যক্তি। আমরা সকলে কৃষিতে এগিয়ে আসা প্রয়োজন। কৃষি দ্বারা দেশ উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে। কৃষিতে নির্ভর হলে খাদ্য সংকট কমে যাবে।
এসময় সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আশিক জামিল মাহমুদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জিএস তসলিম, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি কামরুজ্জামান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাজুদা বেহম, সাবেক ছাত্রনেতা কামরুল সাউদ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতিসহ কৃষক, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকগণ। পরে অনুষ্ঠানে অথিতিরকে ও কৃসকদের মাঝে পুরুস্কার প্রধান করা হয়।