১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  রাত ১০:২৯  ৭ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
২রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মাটির নিচ থেকে ২ কোটি টাকার স্বর্ণ তুলতে গিয়ে তিন কবিরাজ আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে মাটির নিচ থেকে দুই কোটি টাকার স্বর্ন তুলে দিতে গিয়ে চার দিনের মাথায় শ্রীঘরে তিন কবিরাজ। গত তিনদিন ধরে দুই লাখ টাকা চুক্তিতে রান্নাঘরের মাটির নিচ থেকে স্বর্ণ তুলে দিতে সময়ক্ষেপণ করায় পুলিশের কাছে তুলে দেয় এলাকাবাসী।

ঘটনাটি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার ২নং বাকিলা ইউনিয়নের ফুলছোঁয়া ক্বারী সাহেবের বাড়ীতে ঘটে।

শনিবার দিবাগত রাতে ফুলছোঁয়া ক্বারী সাহেবের বাড়ীর ইমান হোসেনের বসতঘরে তিনদিন ধরে অবস্থান নেয় দুই পুরুষ ও এক নারী কবিরাজ।

তারা হলো পটুয়াখালী জেলার দশমিনা থানার বহরমপুর গ্রামের তোফাজ্জল মুন্সী (৪০), একই জেলার বাউফল থানার নওমালা গ্রামের আবদুর রহিম (৩০) ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার বাঞ্চারামপুর থানার সোনারামপুর গ্রামের তানিয়া আক্তার (২৫)।
তারা গত তিন দিন ধরে ফুলছোঁয়া ক্বারী সাহেব বাড়ীর ঈমান হোসেনের ঘরে থাকা, খাওয়া এবং চুক্তিমতে ২ লক্ষ টাকা থেকে অগ্রিম টাকা থেকে খরচ করে আসছে।

বিষয়টি প্রথমে এলাকা বা বাড়ীর কেউ টের না পেলেও পরবর্তীতে ঈমান হোসেনের মুখ থেকে চুক্তিনামার কথা শুনে স্থানীয় কয়েকজন যুবক গণমাধ্যম ও প্রশাসনকে অবহিত করেন।

প্রতারক চক্রের এ তিন ভুয়া কবিরাজের সাথে প্রশাসন কথা বললে তারা তাদের প্রতারণার কথা স্বীকার করেন। পরে প্রতারণার দায়ে হাজীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন ঈমান হোসেন।

এ সময় প্রতারণার শিকার ঈমান হোসেন বলেন, বান্দরবান জেলায় ব্যবসার সুবাদে তোফাজ্জলের সাথে পরিচয় হয়। সেই সুবাদে আমার সাথে যোগাযোগ করে বলেন, দুই লাখ টাকা চুক্তিতে তিন কবিরাজ স্বর্ণ তুলে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

তিন প্রতারককে রোববার দুপুরে চাঁদপুর আদালতে হাজির করা হয় বলে জানান হাজীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার মোস্তাক আহমেদ।